রাতে মুরগির লোভ দেখিয়ে সিংহীকে দিয়ে চলত বেআইনি কাজ

পর্যটকদের সামনে রাতের অন্ধকারে চলত খেলা। তার জন্য নেওয়া হত মোটা অঙ্কের টিকিট খরচ। ভারতের গুজরাটের গিরের বাবারিয়া রেঞ্জে বেআইনিভাবে এই খোলা দেখানো হত। সিংহীর সামনে মুরগির লোভ দেখিয়ে পর্যটকদের খেলা দেখানো হত।

বন্যকর্মীদের কথায় এই ধরনের কাজ খুব ঘৃণ্য এবং ভয়ঙ্কর। কারণ, এতে সিংহীর জীবনে গতিপথ ব্যাহত হচ্ছে। পাশাপাশি কোনও ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ২০১৮ সালের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। তারপরই পুরো ঘটনা প্রকাশ্যে আসে। জানা যায়, এর কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত ছিল তিনটি পর্যটন সংস্থা।

পরে, এই ঘটনা গুরুতর অপরাধ হিসেবে গণ্য করে অপরাধীদের তিন বছর সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে। পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

জানা যায়, অভিযুক্ত ধ্রুবকবাদী, জঙ্গলের মধ্যে তারই একটি জমি ছেড়ে দেন এই বেআইনি কাজের জন্য। সেই জমিও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। পর্যটকদের থেকে ছয় হাজার টাকা টিকিট বাবদ নিয়ে খেলা দেখানো হত। বণ্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন ১৯৭২ অনুযায়ী একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে।

২০১৮ সালে রাতের অন্ধকারে খেলা দেখানোর সময়ই গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্তদের। যারা মুরগি হাতে নিয়ে সিংহটিকে উস্কাতেন।