লকডাউনে স্কুটি নিয়ে রাস্তায় বেরিয়ে সকলের সামনে কা’ন ধরে উঠবস করল যুবতী, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে নানা রকম ভিডিও ভাইরাল হয় প্রতিদিন। সেখানে নাচ-গান প্রভৃতি অ্যা’ক্টি’ভিটির সাথে মার্শাল আর্ট এছাড়াও নানা রকম অ’দ্ভুত ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হতে দেখি আমরা।

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে বহু মানুষ তাদের প্রতিভাকে বিশ্বের সামনে প্রদর্শন করতে পারছেন। দেশের কোনায় কোনায় এমন অনেক মানুষ রয়েছেন, যাদের প্রতিভা থাকলেও নেই সুযোগ। তবে সোশ্যাল মিডিয়া এবং বিভিন্ন অ্যা’পসের মাধ্যমে

তারা নানারকমভাবে বিশ্বের সামনে নিজেদের প্রতিভা প্রদর্শন করতে পারছেন। প্রতিভা প্রদর্শনের দৌড়ে কিশোর-কিশোরী যুবক-যুবতীদের সাথে বয়স্করাও পিছিয়ে নেই।

তবে বর্তমানে নানা রকম অ্যাপের মাধ্যমে আকর্ষণীয় ভিডিও পোস্ট করে ভাইরাল হয়ে যাচ্ছেন প্রায় প্রতিদিনই নানা মানুষ।

এই সমস্ত অ্যাপগুলি ব্যবহার করে মানুষ তার প্রতিভাকে করে তুলেছে আরো আক’র্ষণীয়। সুন্দরভাবে পরিবেশিত ভিডিওগুলি দেখে মন জুড়িয়ে যায় সকলের।

যদিও উপযুক্ত প্রতিভা ছাড়া কোন অ্যাপের মাধ্যমে কিছু করা সম্ভব নয়, সবকিছুর জন্য চাই প্রতিভা। আজকাল বিভিন্ন সেলিব্রিটিরাও লকডাউনে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাদের ভক্তদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনে সমর্থ হয়েছেন।

তারা ফেসবুক ইউটিউবসহ ইনস্টাগ্রাম সব জায়গাতে নিজের প্রতিভা প্রদর্শন করে দর্শকদের মন মাতিয়েছেন বারবার। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায় প্রতিদিন ভাইরাল হয় নানা রকম মজার ভিডিও।

ভিডিওগুলি দেখে হেসে লুটোপুটি হয়ে যান দর্শক। কিছুদিন আগে একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছিল, দুটি মেয়ে নারকেল গাছ ধরে ঝুলছিল, হঠাৎই ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে তারা সোজা পড়ে যায় নিচে। ”

আবার ভিডিওর আর একটি অংশে দেখা গেছিল, এক ভদ্রলোক জলের মধ্যে জাল ফেলে মাছ ধরার চেষ্টা করছে, কিন্তু ঝাঁকুনির চোটে জালের সঙ্গে তিনি নিজেও পড়ে যান জলে।

আবার ভিডিওর আরেকটি অংশ দেখা যাচ্ছিল, এক ভদ্রমহিলা সমুদ্রের জলের মধ্যে দাঁড়িয়ে রয়েছেন সমুদ্রের ঢেউ তার পায়ের কাছে আসতেই তিনি টাল সামলাতে না পেরে একদম উল্টে পড়ে যান নিচে।

এইরকমই নানান মজার ঘটনা দিয়ে ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছিল। ভিডিওটি দেখে হেসেই খুন দর্শকরা। 2020 সাল থেকে করণা আ-ত–ঙ্কের সারা পৃথিবীতে শুরু হয়ে গেছে মৃ–‘ত্যু-‘র মিছিল।

গত এক বছর ব্যাপী ল’কডাউন এরপর আবার এই নতুন বছরে জনজীবন স্বাভাবিক হতে শুরু করেছিল, কিন্তু আবার ঘটল ছন্দপ’তন।

মানুষের দায়িত্বজ্ঞানহীনতার জন্য আবার করোনা ছড়িয়ে পড়ল চারিদিকে। তাই পহেলা মে থেকে শুরু হয়ে গেল আবার আংশিক ল’কডাউন সারা পশ্চিমবঙ্গ জুড়েই

কিন্তু মানুষের তাও ক-র-ণা সম্পর্কে কোন ভ’য় নেই, তাই আগের বছরও আমরা দেখেছিলাম পু’লিশকে এই ব্যাপারে সচে’তনতার সাথে কাজ করতে।

সেই সময় জনতাকে সচেতন করার জন্য পুলিশকে অনেক অ্যাক’শন নিতে দেখা গেছিল। বিশেষ করে মাস্ক না পড়ার জন্য অনেক জনতাকেই পু’লিশ নানা রকম শা’স্তি দিয়েছিলো।dailybangla71 – Hjjwsncকখনোবা নাটকের মাধ্যমে তাদের সচেতন করা, কখন বা গানের মাধ্যমে সবরকম চেষ্টাই করেছিলেন তারা। কিন্তু তাও বেশ কিছু পরিমাণ জনগণ মানতে ছিলেন নারাজ।

সেই পরিস্থিতিতে পুলিশকে বাধ্য হয়েই অ্যাকশন নিতে হয়েছিল। রাস্তায় মাস্ক বা সচেতনতামূলক কোন ব্যবস্থা না থাকলে সেই ব্যক্তিকে

ধরে পুলিশ শা’স্তি দিয়েছিলো তা কখনো বা কান ধরে উঠবস করা কখনও বা তাকে জে’লের ভ’য় দেখানো ইত্যাদি সবকিছুই পুলিশ করেছিল।

এবং সেগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় হয়ে গেছিল অত্যন্ত ভাইরাল। সম্প্রতি একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, দুটি মেয়ে সম্ভবত কোন মাস ছাড়াই

অথবা বিনা প্রয়োজনে লকডাউনের মধ্যে বাড়ি থেকে বেরিয়ে গল্প করছিল। সেই সময় তারা পুলিশের হাতে ধরা পরে। পুলিশ তাদের কান ধরে উঠবস করাতে বাধ্য হয় রাস্তার মধ্যে।

সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে পুরো সোশ্যাল মিডিয়ায়। এত দুঃখের মধ্যেও এই ভিডিওটি দেখে জনগণ হেসেই খুন। বিশেষ করে এই রকম ও সচেতন মানুষের প্রতি

পুলিশের এই একশন অত্যন্ত পছন্দ করেছে তারা। এইরকম মানুষদের সাথে এই ভাবেই ব্যবহার করা উচিত, তারা পুলিশকে এই ব্যাপারে সমর্থন জানিয়েছে।

Facebook-youtube ইনস্টাগ্রাম সব জায়গায় ভিডিওটি হয়ে গেছে ভাইরাল। এমনকি ভিডিওটি অসাধারণ মানুষদেরও সচেতন করার জন্য এক শিক্ষামূলক ভিডিও।

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই এরকম মজার ভিডিও ভাইরাল হয়। সারাদিনের কাজের পর মানুষ এসব ভিডিও দেখেই কিছুটা স্বস্তির আশ্বাস পান।

এইভাবে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সারা পৃথিবী রয়েছে সচল। করণা আ-‘ত-‘ঙ্কে যেন পৃথিবীতে নেমে এসেছিল মৃ–”ত্যু’-র নীরবতা, সেখানে এখনো পর্যন্ত সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে মানুষ তার মনকে সচল রাখতে পেরেছিলেন।