টিকটক-লাইকিতে ‘আপত্তিকর’ ছবি দেওয়ায় স্ত্রীকে মেরে ফেললেন স্বামী

বা,গেরহাট পৌ,রসভার দশানী এলাকায় টি,কটক করা নিয়ে পা,রিবা,রিক কলহের জেরে স্ত্রী শ্রবনি আ,ক্তার সুমা (২০) কে হ,ত্যা করে থানায় আ,ত্মস,মর্পণ করেছেন স্বামী আ,ব্দু,ল্লাহ নাহিন শান্ত (২৫)। শনিবার (৮ মে) রাত ৯টার দিকে দশানী এলাকার বালিকা বি,দ্যালয় সংল,গ্ন এলাকায় এ ঘ,টনা ঘ,টে।

নি,হত সু,মা বা,গেরহাট শ,হরের সিং,ড়াই গ্রা,মের বাসি,ন্দা করিম ব,ক্স এর মেয়ে। শান্ত দ,শানী এলাকার বাসিন্দা অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য গোলাম মোহাম্মদ এর ছেলে। পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী বলেন, শান্ত ঢাকার একটি পোশাক ফ্যাক্টরিতে চাকুরী করতো। সম্প্রতি করোনা প্রতিস্থিতে তার চা,কুরী চলে গেলে সে বাড়ীতে ফিরে আসে।

বাড়ীতে আসার কি,ছু,দিন পর শান্ত ও তার স্ত্রীর সুমার মধ্যে টিকটক করা নিয়ে ঝগড়া হয়। পরে সুমা রাগ করে বাবার বাড়ীতে চলে যায়। বাড়ীতে কেউ না থাকার সুবাধে এদিন বিকালে শান্ত ফোন করে তার স্ত্রী,কে বাড়ীতে ডেকে নেয়। মাগরিবের নামাজের পর তাদের মধ্যে ঝগড়া শু,রু হয়। এসময় শা,ন্ত তার স্ত্রী সুমাকে মুখে কিলঘুসি দিয়ে ও,ড়না দিয়ে শ্বা,সরো,ধ করে হ,ত্যা করে থানায় গিয়ে আ,ত্ম,সমর্প,ণ করে।

নি,হতের বড় ভাই মোঃ রাসেল বলেন, শান্ত আমার বোনতে হ,ত্যা করবে জানিয়ে আমার বোন আমাকে বিকাল ৫টার দিকে মেসেজ দেয়। কিন্তু মেসেজটি আমি দেখি রাত ৮টার দিকে।

ছুটে গিয়ে দেখি শা,ন্ত আমার বোনকে হ,ত্যা করেছে। আমি আমার বোন হ.ত্যার বিচার চাই। বাগেরহাট মডেল থানার ভা,রপ্রাপ্ত ক,র্মক,র্তা (ওসি) কে,এম আজিজুল ইসলাম বলেন, স্ত্রী,কে হ,ত্যা করে শা,ন্ত নামের এক যুবক থানায় আ,ত্মসম,র্পণ করেছে। তাকে জি,জ্ঞা,সাবাদ চলছে। মরদেহ উ,দ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতাল ম,র্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Share