মিষ্টি পানীয়ের কারণে বাড়ছে ক্যান্সারের আশঙ্কা!

বেশি চিনি মেশানো পানীয়ের কারণে বাড়ছে অন্ত্র এবং মলদ্বারের ক্যান্সারের আশঙ্কা। এমনটাই জানিয়েছে ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘স্কুল অব মেডিসিন’ বিভাগের এক সমীক্ষা।

৩-৪ বছর আগে অন্ত্র ও মলদ্বারের ক্যান্সার সংক্রমণের গড় বয়স ছিল ৭২ বছর। কিন্তু গত কয়েক বছরে সেই গড় বয়স কমে এসে দাঁড়িয়েছে ৬৬-তে।

গড় বয়স কেন কমে যাচ্ছে এই প্রশ্নের উত্তরে ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েক জন গবেষক একটি সমীক্ষা শুরু করেন। তাতেই উঠে এসেছে এই তথ্য।

সমীক্ষায় দেখা গেছে, অল্প বয়স থেকেই যারা অতিরিক্ত মিষ্টি বা চিনি মেশানো পানীয় পান করতে শুরু করেন, তাদের ক্ষেত্রে এই ধরনের ক্যান্সারের আশঙ্কা বাড়তে থাকে। যারা প্রতিদিন ২০০ মিলিলিটার বা তার বেশি মিষ্টি পানীয় পান করেন, তাদের ক্ষেত্রে অন্ত্র এবং মলদ্বারের ক্যানসারের আশঙ্কা প্রায় ১৬ শতাংশ বেড়ে যায়।

বিজ্ঞানীরা অল্প বয়সে এই ধরনের ক্যান্সারে আক্রান্ত ১ লাখ ১৬ হাজার ৫০০ জনকে নিয়ে এই সমীক্ষাটি চালান। তাতে দেখা গেছে, এই আক্রান্তদের প্রায় সকলেই অতিরিক্ত মিষ্টি পানীয় দীর্ঘ দিন ধরে পান করে আসছেন। সাধারণ ২০ থেকে ৩৪ বছর বয়সীদের এই জাতীয় পানীয় সবচেয়ে বেশি মাত্রায় পান করতে দেখা যায়। পরবর্তী সময়ে এই ধরনের পানীয়ের অভ্যাস ছেড়ে দিলেও, তার প্রভাব শরীরে থেকে যায়। এজন্য কম বয়সে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে।

সমীক্ষা বলছে, শিশুদের বেড়ে ওঠার বয়সে, বিশেষ করে ১৩ থেকে ১৮ বছরের মধ্যে যদি এই জাতীয় পানীয়ের অভ্যাস হয়ে যায়, তাদের অনেকের ক্ষেত্রেই ৫০ বছরে পৌঁছনোর আগেই শরীরে বাসা বেঁধে ফেলে এই জাতীয় ক্যান্সার।