যে কারণে এই ঈদে সাফার মন খারাপ

এবারের ঈদে নতুন জামা পরবেন না ছোট পর্দার অভিনয়শিল্পী সাফা কবির। পুরোনো জামা দিয়েই কাটবে তাঁর উৎসব। তবে ঈদের দিন রান্না করবেন তিনি। রান্না করতে ও রান্নার ভিডিও দেখতে ভালোবাসেন তিনি। ঈদে টেলিভিশন ও অনলাইনে দেখা যাবে সাফা কবির অভিনীত প্রায় ২০টি নাটক ও টেলিছবি। এগুলোর মধ্যে কেবল চারটি নতুন, বাকিগুলো গত বছরের অক্টোবর-নভেম্বর মাস ও চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ভ্যালেন্টাইন ডে উপলক্ষে করা। ‘চিরকাল’, ‘সাত সতের’, ‘রিভার্স’, ‘সন্ধ্যে নামতে দেরি’, ‘ট্রুথ অর ডেয়ার’, ‘মোর দ্যান ফ্রেন্ড’, ‘লকডাউন প্রেম’, ‘ঢাকাইয়া খানদান’, ‘আঁধারি’, ‘মনের মতো বাগান’, ‘চরের মাস্টার কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার’ উল্লেখযোগ্য। এগুলোর মধ্যে বেশির ভাগ নাটকেই তাঁর সহশিল্পী তৌসিফ মাহবুব। কয়েকটিতে জোভান ও একটিতে খায়রুল বাসার।

নাটকগুলো নিয়ে সাফা জানালেন, এই ঈদে তাঁর ভীষণ মন খারাপ। কেননা, এবার তিনি দর্শকদের সামনে নতুন নাটক নিয়ে হাজির হতে পারছেন না। প্রচারের অপেক্ষায় থাকা বেশির ভাগই পুরোনো, ঈদ উপলক্ষে অভিনীত নয়। বেশির ভাগ নাটকে সহশিল্পী তৌসিফ মাহবুব কেন? তিনি বলেন, ‘এটা আমার বা তৌসিফের ইচ্ছায় হয় না। প্রযোজক, পরিচালকেরা আমাদের নিয়ে কাজ করতে চান। হয়তো দর্শক আমাদের জুটি দেখতে চান। আমি বা তৌসিফ এ জন্য দায়ী নই। এটা এভাবেই তৈরি হয়ে গেছে।

মহামারিকালে শুটিংয়ের তেমন চাপ নেই সাফার। ঘরে ভালোই কাটছে তাঁর। কীভাবে সময় কাটে, জানতে চাইলে বলেন, ‘রান্না করে আর রান্নার ভিডিও দেখে। আমি ইউটিউবে প্রচুর রান্নার ভিডিও দেখি আর রান্না করি। তবে একটু ভিন্নভাবে চেষ্টা করি। যেমন ইলিশ দিয়ে আনারস বা মাংসটাই একটু ভিন্নভাবে করা। কখনো কখনো দক্ষিণ ভারতীয় পদ রান্না করি।

ঈদের পরিকল্পনা নিয়ে সাফা বলেন, ‘কোনো পরিকল্পনা নেই। কিচ্ছু কিনিনি। শপিং করার তো প্রশ্নই আসে না। আলমারি খুলে পুরোনো কিছু একটা পরে নেব। আর বিয়ের পরিকল্পনা? জানালেন, বিয়ের কোনো পরিকল্পনা নেই, বাসা থেকে বিয়ের তেমন চাপও নেই। এমনকি প্রেমও নেই সাফার। বাবা প্রায়ই তাঁকে জিজ্ঞেস করেন, ‘কি রে, তুই প্রেম করিস না? তোর প্রেম হয় না কেন?’ এই প্রশ্নে সাফা বলেন, ‘সময় কই? কাজ করি, রান্না করি। শুটিং সেটে মানুষের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয়, আড্ডা হয়, কিন্তু প্রেম না। অনেকের বাসা থেকে যেমন “বিয়ে করো বিয়ে করো” বলে মাথা খারাপ করে দেয়, আমার তেমন কোনো চাপ বা তাড়া নেই। আস্তে-ধীরে যখন ইচ্ছে হয় করব।