ঈদের দিন সকালেই হালকা বৃষ্টি হতে পারে

এবারের ঈদের দিন রাজধানী ঢাকায় ভোর থেকে সকালের মধ্যেই একঝটকা বৃষ্টি হতে পারে। সকাল থেকে আকাশ মেঘলা থেকে দিন গড়াতে রোদের দেখা মিলবে। সারা দেশেও সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্নভাবে বৃষ্টি হতে পারে, সঙ্গে দমকা হাওয়া ও আকাশে বিজলির ঝলকানি দেখা দিতে পারে। ফলে ঈদের সারা দিন গরম কমে কিছুটা আরামদায়ক অবস্থায় থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, আজ বৃহস্পতিবার দেশের বিভিন্ন স্থানে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হয়েছে। আকাশের মেঘ গলে রোদের দেখাও পাওয়া যাচ্ছে। আজ দেশে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে পঞ্চগড়ে ২৯ মিলিমিটার। দেশে সবচেয়ে বেশি তাপমাত্রা ছিল চাঁদপুরে ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সারা দেশে আকাশ মেঘলা থাকায় এবং কোথাও কোথাও বৃষ্টি পড়তে থাকায় সারা দেশ থেকে তাপপ্রবাহ বিদায় নিয়েছে।

বিষয়ে জানতে চাইলে আবহাওয়া অধিদপ্তরের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান প্রথম আলোকে বলেন, দেশের বেশির ভাগ এলাকায় আকাশে মেঘ রয়েছে। মেঘ জমে জমে আজকের মতো আগামীকাল দিনেও সারা দেশে বৃষ্টি হতে পারে। ঈদের দিন ঢাকায় ভোর থেকে সকালের মধ্যে বৃষ্টি হয়ে বাকিটা সময় আকাশ পরিষ্কার থাকবে।

এদিকে সরকারের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র সূত্র থেকে জানা গেছে, বাংলাদেশে বৃষ্টি কম হলেও উজানে ভারতীয় অংশের আসাম ও মেঘালয়ে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি চলছে। এর ফলে সিলেটের সুরমা ও কুশিয়ারা নদীর পানি দ্রুত বাড়ছে। দেশের বিভিন্ন নদ-নদীর ৩৯টি পয়েন্টের পানি বাড়ছে ও ২০টির পানি কমছে।