সব টালবাহানা শেষে দুই দেশ মিলে যে নতুন সিদ্ধান্ত নিলো

অবশেষে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে রাজি হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। বেশ কিছুদিন ধরেই বাংলাদেশ বনাম শ্রীলংকার মধ্যকার তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ নিয়ে ঘুরছিল নানা আলোচনা।

দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডের মধ্যে কথা চালাচালির পর অবশেষে একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এসে পৌঁছাতে পেরেছে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ৭ থেকে ১০ অক্টোবরের মধ্যে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে শ্রীলংকার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল।

আগামী দুই একদিনের মধ্যেই শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানতে পারবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান।

শ্রীলঙ্কা সিরিজ নিয়ে আজ আকরাম খান জানিয়েছেন, “সব অনিশ্চয়তা দূর করে আমাদের জাতীয় দল শ্রীলঙ্কা খেলতে যাচ্ছে। সম্ভাবনা অনেক বেড়ে গিয়েছে। আশা করছি আগামী তিন-চারদিনের ভেতরে লঙ্কান বোর্ডের কাছ থেকে চূড়ান্ত কথাবার্তা পেয়ে যাব।

তবে এখনকার খবর হলো সফর হচ্ছে। আমরা শ্রীলঙ্কা খেলতে যাব। সেই লক্ষ্যেই আমাদের কথাবার্তা এগিয়েছে। আশা করছি কয়েকদিনের ভেতরেই সব চূড়ান্ত হয়ে যাবে।’

আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে বলে জানিয়েছেন আকরাম খান। তিনি বলেছেন আগামী সোম অথবা মঙ্গলবার এর মধ্যেই সিরিজ চূড়ান্ত হবে বলে ধারণা করছেন। পরিশ্রান্ত হলেই আগামী মাসের ৭ থেকে ১০ তারিখের মধ্যে শ্রীলংকা যাবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল।

‘শ্রীলঙ্কা থেকে সবশেষ আগের কথাই বলেছে। অর্থাৎ বিষয়টা ওদের হাতে নেই। ওরা আশা করেছিল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে গতকাল (শুক্রবার) কোনো খবর পাবে। আগামী দুই-তিনদিনের মধ্যে হয়তো পেয়ে যাবে। ওরা চেষ্টা করছে।’

‘ওরা চাচ্ছে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সিরিজটা আয়োজন করতে। আমার মনে হয় ওরা ইতিবাচক আছে। আজকে ও কালকে (শনি ও রবিবার শ্রীলঙ্কার সাপ্তাহিক ছুটি) ওদের বন্ধ। আশা করছি সোমবার বা মঙ্গলবার চূড়ান্ত কিছু চলে আসবে।

যদি ইতিবাচক হয় আমরা আগামী মাসের ৭-১০ তারিখের মধ্যে যেতে পারি। যেহেতু ওদের যে শ্রীলঙ্কান টি-টোয়েন্টি লিগ (এলপিএল) হওয়ার কথা ছিল সেটা এখন নিশ্চিত না। অতএব ওদের কাছে সময় আছে।’