করোনায় বন্ধ কলকাতার টিভি সিরিয়ালের শুটিং

ভারতীয় বাংলা সিরিয়ালপ্রেমীদের জন্য দুঃসংবাদ। আগামী ১৫ দিন দেখা যাবে না সিরিয়ালের নতুন পর্ব। কারণ, করোনা সংক্রমণের কারণে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য। ফলে বন্ধ থাকবে ধারাবাহিকের শুটিং। এমনটাই জানিয়েছে সেখানকার একাধিক গণমাধ্যম।

আর্টিস্ট ফোরামের যুগ্ম সম্পাদক শান্তিলাল মুখোপাধ্যায় বলেন, “কাল থেকে সমস্ত যান চলাচল বন্ধ। কেউ আসতেও পারবেন না। সেক্ষেত্রে শুটিং বন্ধ রাখতে হবে। এখানে আর্টিস্ট ফোরামের তো কিছু বলার নেই। সরকার থেকে যা সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে তাই মেনে চলা হবে।”

তবে ফেডারেশন অব সিনে টেকনিশিয়ান শুটিং বন্ধের বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি। সংগঠনটির সভাপতি স্বরূপ বিশ্বাস বলেন, “এখন অবধি আগামী পদক্ষেপ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। মিটিংয়ে বসব। সবটাই আলোচনাসাপেক্ষ। এত তাড়াহুড়ো করে কোনও সিদ্ধান্ত নিয়ে উঠতে পারিনি।”

এদিকে সূত্রের বরাত দিয়ে টিভি নাইন বাংলা জানিয়েছে, লকডাউনের আশঙ্কা করেই নাকি এক চ্যানেলের তরফে বেশকিছু দিন আগেই মেইল গিয়েছিল প্রযোজক-পরিচালকদের কাছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অভিনেত্রীর কথায়, “ভোটের আগে আমাদের দিনে ১২/১৪ ঘণ্টা করেও কাজ করতে হয়েছে। সবাই ধরেই নিয়েছিলেন লকডাউন হবে। কিন্তু লকডাউন বৃদ্ধি পেলে সেক্ষেত্রে পুরনো এপিসোড চালানো হবে না বাড়ি থেকে শুট হবে আগেরবারের মতো তা—এখনও কিছুই জানতে পারিনি।”

স্টুডিওপাড়ার দরজা বন্ধ হওয়ায় যে ফের কলাকুশলীদের মাথায় হাত পড়েছে তা বলাই বাহুল্য। কারণ, গত বছর লকডাউনের জেরে হওয়া আর্থিক ধাক্কাই এখন অবধি সামলে উঠতে পারেনি বিনোদন দুনিয়া। বহু ছবির শুটিং স্থগিত। বাতিল করতে হয়েছে মুক্তির দিনক্ষণও।

তাছাড়া, কলাকুশলীদের বেশিরভাগই ‘নো ওয়ার্ক নো পে’ সিস্টেমে কাজ করেন। এমতাবস্থায় ফের ১৫ দিনের লকডাউন ঘোষণা হওয়ায় যে তারা নতুন করে আর্থিক সঙ্কটে পড়বেন, তা সহজে বলা যায়। আর সেই আশঙ্কাই তাদের কপালে ভাজ ফেলে দিয়েছে।