বেচলেও আপনার তো কিছু বেচি নাই, বললেন ক্ষুব্ধ মিথিলা

গত শনিবার (১৫ মে) রাতে ই-ভ্যালি আয়োজিত একটি ফেসবুক লাইভ শো’তে সরাসরি অংশ নেন তাহসান ও মিথিলা। সেখানে তারা ভক্তদের আহ্বান করেন নেতিবাচক ভাবনা থেকে সরে এসে সুন্দর কিছু করার জন্য। তবে মিথিলা-তাহসানের এমন উপস্থিতি ও সুন্দরের বার্তায় প্রতিক্রিয়া এসেছে নানাভাবে। বেশিরভাগ মানুষ তাদের এই সুন্দর সমঝোতাকে সুন্দর চোখে দেখলেও কিছু প্রতিক্রিয়া এসেছে বরাবরের মতো নেতিবাচক। মিথিলার অভিযোগ, এই তালিকায় রয়েছেন তারই কিছু সতীর্থ বা জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব। যা তাকে যারপরনাই হতাশ করেছে।

রবিবার (১৬ মে) বিকালে মিথিলা তার ফেসবুক পোস্টে এই বিষয়ে নিজের অবস্থান ও কড়া প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। উদাহরণ টানেন দুটি প্রতিক্রিয়ার। এর একটি এমন, ‘বিয়ে-ডিভোর্স… সব বেচে দিলেন তাহসান-মিথিলা!’ আরেকটি এমন, ‘ডিভোর্সের পরে এতো রেসপেক্ট, ফ্রেন্ডশিপ! আগে কই ছিল এইসব?’

দুটি প্রতিক্রিয়ার জবাবে মিথিলা বলেন, ‘শো শেষ হওয়ার পর আমরা ভক্তদের কাছ থেকে অবিশ্বাস্য শুভেচ্ছা বার্তা পেলাম। এর জন্য আমরা তাদের প্রতি ধন্যবাদ জানাই। কিন্তু অবাক হলাম আমার ক’জন কলিগ বা তারকার প্রতিক্রিয়া দেখে। আমি বিস্মিত, কেমন করে এমন প্রতিক্রিয়া সম্ভব হলো।

কেমন করে আমি আমার বিয়ে, বিচ্ছেদ সব বেচে দিলাম! টানা ৫ বছর আমরা একসঙ্গে কাজ করিনি। এখন যে কাজটি করলাম, সেটির মূল উদ্দেশ্য মানুষের মধ্যে সাইবার বুলিং প্রবণতা রোধ করার জন্য একটা উদাহরণ তৈরি করা। তাছাড়া দুইটা মানুষ বিচ্ছেদ হলে কি বাকি জীবনের পুরোটাই মুখ দেখাদেখি বন্ধ করে দেবে? আমাদের তো একটা বাচ্চাও আছে। ওর কি হবে?

দুজনেই আমরা মিডিয়ায় কাজ করি। তবে কি বিচ্ছেদের কারণে আমরা কোনও প্রফেশনাল ডিলও করতে পারবো না? আর ভাই বেচলেও আপনার তো কিছু বেচি নাই। আপনার প্রবলেম কি! মিথিলা আরও বলেন, ‘‘অন্য এক তারকা তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘ডিভোর্সের পরে এতো রেসপেক্ট, ফ্রেন্ডশিপ- আগে কই ছিল এসব?’ ভাই, আগেও ছিল।

এখনও আছে। তবে দুটো দু’রকম। এত ব্যাখ্যা আপনাকে দিতে পারছি না। আপনি নেতিবাচক ভাবনা না ছড়িয়ে নিজের চরকায় তেল দিলে সমাজ ও জাতি উপকৃত হবে। তবে কোন সহকর্মী বা তারকারা এসব লিখেছেন সেটি প্রকাশ করেননি মিথিলা। তিনি বলেন, ‘আমি এই প্রতিক্রিয়া মোটেই দেখাতাম না, যদি সাধারণ কেউ এসব লিখতো। এই মানুষগুলো শিক্ষিত, সংস্কৃতিমনা এবং পাবলিক ফিগার। এই মানুষগুলো যদি এই নেগিটিভিটির চর্চা না থামায়, তবে জাতি হিসেবে আমাদের ভবিষ্যৎ নিশ্চিত অন্ধকার।

তবে এ বিষয়ে তাহসান তার দেয়ালে কোনও প্রতিক্রিয়া জানাননি। উল্টো শেয়ার করেছেন তানজিন তিশার সঙ্গে ঈদের নাটক ‌‘অ্যান্টি হিরো’র ইউটিউব লিংক। টানা ৫ বছর পর শনিবার (১৫মে) রাতে এক হলেন তাহসান ও মিথিলা! ই-ভ্যালি আয়োজিত এই বিশেষ শো সঞ্চালনা করেন নাভিদ মাহবুব। সেখানে এই দুই তারকা বললেন নিজেদের কিছু না বলা কথা। ভক্তদের দিলেন ইতিবাচক বার্তা।

তাহসান-মিথিলার এই ‘সারপ্রাইজ’ সরাসরি সম্প্রচার হয় প্রতিষ্ঠানটির ফেসবুক পেইজে। এতে যুক্ত হওয়ার প্রেক্ষাপট বলতে গিয়ে দু’জনেই প্রায় একই তথ্য জানান। বলেন, শুরুতে তারা এই শোয়ের প্রস্তাব এককথায় মানা করে দেন সংশ্লিষ্টদের। মজার তথ্য হলো, শো শেষ করার আগে দু’জনেই সেই তথ্যটি টেনে ধন্যবাদ জানান আয়োজকদের!

‘এই অসাধারণ উদ্যোগটি না হলে হয়তো আমাদের এভাবে বসা হতো না। শেয়ার করা হতো না পজিটিভ ভাবনাগুলো’- যুক্ত করলেন তাহসান-মিথিলা।