প’তিতাকে বিয়ে করলেন মোশাররফ করিম!

নন্দিত অভিনেতা মোশাররফ করিম। তার দর্শকপ্রিয় নাটকের শেষ নেই। এবার ঈদেও বেশ কিছু নাটকে চমক দেখাবেন এই অভিনেতা। সেগু’লোর মধ্যেই একটি ‘সাদা মানুষ’। সুমন আনোয়ারের রচনা ও পরিচালনায় এতে মোশাররফ করিমের স’ঙ্গে জুটি বেঁধেছেন লাক্স তারকা ফারিয়া শাহরিন।নাটকের গল্পে দেখা যাবে, কামাল একজন সহজ সরল সুন্দর মনের মানুষ।

সবসময় হাসিমুখে কথা বলে। যুক্তি দিয়ে কথা বলে। বাবা নাই, মা আর ছেলে দুইজনের সংসার। মাঝে মাঝেই সে বাড়ি থেকে বের হয়ে ৬/৭ দিনেও আর ফিরে আসে না। একদিন গ্রামে পলি নামে এক মেয়েকে নিয়ে আসে। পলির সাথে রেলস্টেশনে পরিচয়। পলি পেশায় একজন পতিতা। পলি তার বাড়িতে বেড়াতে আসে। এ নিয়ে গ্রামের মানুষের মাঝে আলোচনা সৃষ্টি হয়।

সবাই কামালকে নিয়ে বাজে কথা বলতে থাকে। কামালের মাও বিষয়টা ভালোভাবে নেয়নি। কিন্তু ছেলের দিকে তাকিয়ে কিছু বলতে পারে না।কামালের মা একদিন অসুস্থ হয়ে পড়লে পলি তার মায়ের সেবা করে। সেটা কামাল এবং কামালের মায়ের ভালো লাগে। গ্রামের মানুষজন একদিন কামালের বাসায় যায় যেন পলিকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয়। না হয় তাদের গ্রাম থেকে বের করে দেওয়া হবে।

সবাই মিলে গ্রামের মাতব্বরকে জানায়। পরদিন কামালের বাড়িতে শালিস বসে। মাতব্বর বলে টাকা দিয়ে যে মানুষ কিনা যায় সে মানুষ গ্রামে থাকতে পারবে না। পলি বলে পয়সার কাছে কেন বিক্রি হইছি জানতে চাইছেন? আমা’র বাবার হ’ত্যার কোন বিচার হয় নাই। আমা’দের ভিটা কেন নিয়ে গেছে জানতে চাইছেন? একটা ছোট মেয়ে কেন বাজারে বিক্রি হইছে জানতে চাইছেন?

আজকে যখন মেয়েটা ভালো ’হতে চাইছে আর আপনারা আসছেন তার বিচার করতে? সমাজ পরিবর্তন করবেন? তখন কোথায় ছিলো আপনাদের সমাজ। কোন ফয়সালা না করেই শালিস শেষ হয়। কামালের মায়ের পলিকে ভালো লেগে যায় এবং পলির সাথে কামালের বিয়ের চিন্তা করে। একদিন হুজুর ডেকে কামালের সাথে পলির বিয়ে দিয়ে দেওয়া হয়।

বাসর রাতেও পলির বিশ্বাস হয় না একজন পতিতাকে কামাল বিয়ে করেছে। কামাল বলে আমি একজন মানুষকে বিয়ে করেছি।উল্লেখ্য, ঈদের ৬ষ্ঠ দিন রাত ১০টায় আরটিভিতে প্রচারিত হবে একক নাটক ‘সাদা মানুষ’।এনএস