মাথায় সিঁদুর, বিয়ে করেছেন গীতা কাপুর!

ভারতে সুপার ড্যান্স ৪-এর বিচারক গীতা কাপুরের (৪৭) বেশ কিছু ছবি ভাইরাল। এসব ছবিতে তার মাথায় সিঁদুর পরা। তা দেখে ভক্তরা বিস্ময়ে। তবে কি তাদের ‘গীতা মা’ বিয়ে করেছেন! গীতা অবশ্য সঙ্গে সঙ্গে জবাবও দিয়েছেন। বলেছেন, না, তিনি বিয়ে করেননি। এ নিয়ে অনলাইন জি নিউজ একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। তাতে বলা হয়েছে, ড্যান্স বিষয়ক রিয়েলিটি শো সুপার ড্যান্সের বিচারক গীতা। ৪৭ বছর বয়স হয়ে গেলেও তিনি বিয়ে করেননি।

অনেক ভক্তই তাকে ‘গীতা মা’ বলে ডাকেন। সম্প্রতি তার সিঁদুর পরা ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। গুজব ওঠে তিনি বিয়ে করেছেন। কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েন তার ভক্তরা। তারা কিছুই বুঝে উঠতে পারেন না। ফলে গীতা কাপুরই পরিস্থিতি পরিষ্কার করেছেন। তিনি টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেছেন- না, আমি বিয়ে করিনি। আপনারা আমাকে ভালভাবে জানেন। যদি বিয়ে করতাম, তাহলে মোটেও লুকাতাম না।

উপরন্তু, কিভাবে এখন আমি বিয়ে করবো, মাত্র দু’চার মাস হলো মাকে হারিয়েছি। অবশ্যই এসব গুজব সত্য নয়। তিনি আরো বলেন, আমি সিঁদুর খুব পছন্দ করি। যে ছবিগুলো নিয়ে হইচই হচ্ছে তা সুপার ড্যান্স-৪ এর সর্বশেষ পর্বের। এই পর্বটি বলিউডের এভারগ্রিন নায়িকাদের নিয়ে। আমরাও তাদের মতো করে পোশাক পরেছি। তাই বিশ্ব জানে আমি কত্ত পছন্দ করি রেখাজিকে। সে জন্য তার মতো পোশাক পরতে পছন্দ করি। তিনি যেহেতু সিঁদুর পরেন, তাই আমিও পরি।

উল্লেখ্য, বর্তমানে সুপার ড্যান্স প্রতিযোগিতার একজন বিচারক গীতা কাপুর। বয়স হলেও অনেক যুবতী তার কাছে কিছু না। তিনি দীর্ঘদিন বলিউডের কোরিওগ্রাফার ফারাহ খানের সঙ্গে সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করেছেন। ‘দিল তো পাগল হ্যায়’ ‘কুচ কুচ হোতা হ্যায়’ ‘মোহাব্বাতি’ ‘কাল হো না হো’ এবং ‘কভি খুশি কভি গম’ ছবির কোরিওগ্রাফি টিমের অংশ তিনি। বিখ্যাত গান ‘শিলা কি জওয়ানি’- যাতে পারফরম করেছেন নায়িকা ক্যাট্রিনা কাইফ, তার কোরিওগ্রাফারও গীতা।