জেমস ভাই, আমার তো মায়ের পেটের বড়ভাই নাই: নোবেলের আবেগঘন পোস্ট

‘জেমস ভাই। আমার তো মায়ের পেটের বড়ভাই নাই। যদি থাকত, আমি তাকে আপনার মতো করেই ভালোবাসতাম, শ্রদ্ধা করতাম। জেনে না জেনে, বুঝে না বুঝে, রাগ অভিমানে, অনেক অন্যায় করে ফেলেছি। গুরু!! যে ভুল আমি করেছি, সে ভুলের ক্ষমা চাওয়ার যোগ্য আমি নই। তবুও, যদি নিজের ছোট ভাই এবং আপনার সবচেয়ে বড় ভক্ত মনে করে আমাকে একটু ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখতেন, আপনার কাছে চিরকৃতজ্ঞ থাকতাম।’

তরুণ সঙ্গীতশিল্পী মাঈনুল আহসান খান নোবেলের ফেসবুক পোস্ট এটি। অথচ ঈদের আগের এই নোবেলই ফেসবুকে ব্যান্ডশিল্পী জেমসকে উদ্দেশ্য করে লেখেন— ওই জেমস! ঈদের গান কই? নাকি ভয়েস গেছে গা। ওইদিন তার আরও কিছু মন্তব্য নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

পরে অবস্থা বেগতিক দেখে ইউটার্ণ নেন। ফেসবুকে আবেগী স্ট্যাটাস দিয়ে ক্ষমা চান। ঈদের আগের দিন ৯ ঘণ্টায় নোবেল তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ১৭টি পোস্ট দিয়েছেন। যার মধ্যে ১৪টিই হচ্ছে সরাসরি নগরবাউল জেমসকে উদ্দেশ্য করে আপত্তিকর মন্তব্য!

নোবেলের এমন আচরণে বিক্ষুব্ধ আর বিব্রত হলো পুরো মিডিয়া। এক সাংবাদিককেও প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে নোবেলের বিরুদ্ধে। সাংবাদিক কাছির নোবেলের বিরুদ্ধে নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি করেন। এর পর ১৭ মে বিতর্কিত পোস্টগুলো মুছে ফেলেন নোবেল। এর আগে তিনি দাবি করেন তার পেজ হ্যাক হয়েছে! পরে জেমসের উদ্দেশে নোবেল বলেন, ‘এমন ভুল আর হবে না।’