আবারও মাধ্যমিকের অ্যাসাইনমেন্ট শুরু হচ্ছে

আবারও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট শুরু হচ্ছে। প্রায় দুই মাস বন্ধ থাকার পর ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের আগামী সপ্তাহ থেকে অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়ার কাজ শুরু করতে যাচ্ছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে সরকার দেশে ‘কঠোর বিধিনিষেধ’ ঘোষণা করায় মাধ্যমিকের অ্যাসাইনমেন্টের কার্যক্রম স্থগিত রাখার নির্দেশনা দেয় মাউশি। গত ৫ এপ্রিল মাউশি এক নির্দেশনা জারি করে এ কার্যক্রম স্থগিত করে। আদেশ বাস্তবায়ন করতে বিভাগীয় উপ-পরিচালক, জেলা শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা বা থানা শিক্ষা অফিসার এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানদের নির্দেশ দেওয়া হয়।

গত বছরের মতো এ বছরও ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট ও নির্ধারিত কাজের মাধ্যমে মূল্যায়ন করার জন্য ২০ মার্চ থেকে প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মূল্যায়ন কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু সরকারি কঠোর বিধিনিষেধের কারণে এ কার্যক্রম স্থগিত করতে হয়।

মাউশি থেকে জারি করা আগের নির্দেশনায় বলা হয়েছিল, সপ্তাহ শুরুর দুদিন আগে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট ও নির্ধারিত কাজ প্রকাশ করা হবে মাউশির ওয়েবসাইটে। সপ্তাহ শেষে শিক্ষার্থীরা তাদের সেই অ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ শেষ করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জমা দিয়ে নতুন অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণ করবে। অনলাইনে বা সামাজিক দূরত্ব মেনে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া এবং গ্রহণ করতে বলা হয় স্কুলগুলোকে।

মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, করোনা মহামারির কারণে গত বছর ১৮ মার্চ থেকে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। ফলে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে নির্ধারিত পাঠ্যসূচির কার্যক্রম শুরু করা যায়নি। এ কারণে শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যসূচিকে পুনর্বিন্যাস করে শিক্ষার্থীদের শিখনপ্রক্রিয়া অব্যাহত রাখতে গত বছরের মতো ২০২১ শিক্ষাবর্ষে ধারাবাহিকভাবে অ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজের মাধ্যমে মূল্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়।

জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. মাহবুব হোসেন বলেন, করোনার প্রকোপ কিছুটা কমে যাওয়ায় মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট শুরু করতে মাউশিকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। দ্রুত এটি শুরু করা হবে। অ্যাসাইনমেন্টের কাজ আরও সৃজনশীল করতে কাজ শুরু করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

আগামী সপ্তাহের শুরু থেকে অ্যাসাইনমেন্টের কাজ শুরু করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন মাউশির পরিচালক (বিদ্যালয়) অধ্যাপক বেলাল হোসাইন। তিনি বলেন, আজ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে সভা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।