অসাধারণ ভঙ্গিমায় ছাতের মধ্যেই দুর্দান্ত নেচে নেটদুনিয়ায় ভাইরাল যুবতী, রইলো ভিডিও

ভারতবর্ষের সবসময়ই সংস্কৃতির পীঠস্থান। সুদূর প্রাচীনকাল থেকেই ভারতবর্ষে নৃত্য-গীত সবকিছুরই চর্চার প্রমাণ পাওয়া যায়।এমনকি হিন্দুধ’র্ম ক্ষেত্রে দেখা গেছে, প্রত্যেকটি দেবদেবী আলাদা আলাদা মুদ্রায় রত, বিশেষ করে মহাদেবের নটরাজ নৃত্য পৃথিবী বিখ্যাত।

শুধু তাই নয়, সংগীতের দিক থেকেও ভারতবর্ষ রয়েছে এগিয়ে। প্রতিটি হিন্দু ধ’র্মের দেবদেবীকে লক্ষ্য করলে দেখা যায় প্রত্যেকের স’ঙ্গে আলাদা আলাদা বাদ্যযন্ত্র রয়েছে, এমনকি মা সরস্বতী বিদ্যা এবং সংগীত, নৃত্য ও বিভিন্ন সংস্কৃতির দেবী।

বর্তমান যুগে স’ঙ্গীত, নৃত্য প্রভৃতির দিক থেকে ভারত বর্ষ পৃথিবীর মধ্যে এক বিশেষ জায়গা অধিকার করেছে। বিশেষ করে স’ঙ্গীতে মোনালি ঠাকুর, কুমা’র শানু, এবং নৃত্যে প্রভুদেবা, রেমো ডিসুজা প্রভৃতি শিল্পীরা মাতিয়ে দিচ্ছেন পৃথিবী। এমনকি আমা’দের বিখ্যাত স’ঙ্গীত পরিচালক এ আর রহমান পেয়েছেন অস্কার। সে দিক থেকে দেখতে গেলে ভারত বর্ষ সংস্কৃতির দিক থেকে রয়েছে পৃথিবীতে প্রথম দশের এর মধ্যে।

কিন্তু ভারতবর্ষে এমন অনেক মানুষই আছেন, যাদের প্রতিবার থাকলেও উপযুক্ত সুযোগের অভাবে অকালে হারিয়ে যান অন্ধকারে। কিন্তু বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার সাহায্যে এরকম অনেক প্রতিভাকেই আমর’া বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছি। সোশ্যাল মিডিয়ার অবদানের সবথেকে বড় উদাহরণ হচ্ছেন রানু মন্ডল। স্টেশনে যাযাবরের মতো ভিখারীদের সাথে জীবন যাপন করা থেকে আজ তিনি ভারতবর্ষের একজন স্টার।

সারা ভারত বর্ষ তাকে এক ডাকে চেনে। এই রকম ভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ার জন্য বহু মানুষ পেয়েছেন তাদের নিজস্ব পরিচয়। এ রকমই একজন সোশ্যাল মিডিয়া সেন্সেশন হলেন ডান্সার আলিশা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয়। তার ভক্তসংখ্যা যথেষ্ট বেশি। তার ডান্স মুভগু’লি দেখে দর্শকরা হয়ে যান পাগল। নানারূপে নানাভাবে দর্শকের সামনে বারবার তিনি নিজেকে নতুন রূপে ফুটিয়ে তোলেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তার নাচের ভিডিওগু’লো সব সময় হয় ভাইরাল। জনপ্রিয় গায়িকা রেনুকা পাওয়ারকে তো আমর’া সকলেই চিনি। সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছিল তার একটি গান “52 গজ কা দমন”। সারা ভারতবর্ষে অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে গিয়েছিল গানটি।

টিকটক ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম সমস্ত জায়গায় ভাইরাল হয়ে গেছিল গানটি। এমনকি গানটির সাথে অনেকে ভিডিও করে পোস্ট করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়া। গানটি মন ছুঁয়ে গেছিল প্রত্যেকটি মানুষের। সম্প্রতি আবারো ভাইরাল হলো তার একটি গান “পায়েল চান্দি কি”, সম্প্রতি এই গানটিতে নৃত্য পরিবেশন করে দেখালেন আলিশা।

বিশাল বিস্তৃত ছাদের উপর আকাশের তলায় লাল ও সাদা ওড়না আগু’ন লাগিয়ে দিলেন তিনি তার নৃত্তকলার মাধ্যমে। খোলা চুলে তাকে যেন লাগছিল অনন্যা। তার প্রত্যেকটি স্টেপ দেখে মুগ্ধ হয়ে গেছেন দর্শকরা। অসাধারন রুপের সাথে তার প্রতিভা যেন আগু’ন লাগিয়ে দিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। তার পারফরম্যান্স মুগ্ধ করে দিয়েছে সকলকে।

ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে তার অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল থেকে। হাজার হাজার মানুষ ভিডিওটি লাইক করেছে। ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম ইউটিউব সব জায়গায় ভাইরাল হয়ে গেছে ভিডিওটি। তার পারফরম্যান্স প্রত্যেকটি মানুষের মন কেড়ে নিয়েছে।

মানুষ প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে গেছেন তার নাচ দেখে। গানের স’ঙ্গে নিখুঁতভাবে নাচ করে তিনি কাঁপিয়ে দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভাবেই প্রতিভাবান ব্যক্তিরা তাদের প্রতিভাকে বিশ্বের সামনে প্রদর্শন করতে পারেন। দেশের প্রতিটি প্রান্তে রয়েছে প্রতিভা কিন্তু উপযুক্ত সুযোগের অভাবে তারা আজও বঞ্চিত।

কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়া আজও চেষ্টা করে চলেছে সেই সব প্রতিভাদের সুযোগ দেয়ার জন্য। সোশ্যাল মিডিয়ার এই কাজের জন্য তাকে জানাই কুর্নিশ