সবচেয়ে কম বয়সে সবচেয়ে বেশি টাকা নেন কার্তিক

বলিউডের তারকা নির্মাতা করণ জোহরের সঙ্গে তরুণ তারকা কার্তিক আরিয়ানের সম্পর্ক ভালো নয়। করণ প্রযোজিত ছবি ‘দোস্তানা টু’তে অভিনয়ের কথা ছিল কার্তিকের। সেই ছবি থেকে তাঁকে বের করে দেওয়ার পর তীব্র সমালোচনার শিকার হন করণ। অনেকেই করণকে নেপোটিজম বা ‘স্বজনপ্রীতির গডফাদার’ উপাধি দিয়ে বলেছিলেন, কার্তিকের পরিণতিও সুশান্তের মতো হোক, সেটা চান?

ওই ঘটনার পর অনেকেই কার্তিকের ক্যারিয়ার নিয়ে শঙ্কিত ছিলেন। সেই দুঃসময়ে অনেক প্রযোজক ও পরিচালক চিত্রনাট্য বাড়িয়ে দিয়েছিলেন কার্তিকের দিকে। রটেছিল নানা গুঞ্জন। একদিন ধর্ম প্রোডাকশন জানায়, কার্তিকের অপেশাদার আচরণের জন্যই করণ তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছিলেন। এ জন্য তাঁকে ২০ কোটি রুপি ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছিল। তাই কার্তিকের বদলে কোনো তারকার পুত্র বা আত্মীয়কে নিতে পারছেন না করণ। শোনা যাচ্ছে, কার্তিকের সেই চরিত্র করবেন অক্ষয় কুমার।

‘দোস্তানা টু’ থেকে বাদ পড়ায় কার্তিকের অনুরাগীরা হতাশ হয়েছিলেন। তবে আবার সুদিনের মুখ দেখতে যাচ্ছেন এই তারকা। দুটো বড় সিনেমা চলে এসেছে তাঁর ঝুলিতে। একটা দুয়ার বন্ধ হয়ে তাঁর সামনে খুলে গেছে দুটো দুয়ার। আবার স্বমহিমায় বলিউডে কাজ শুরু করবেন কার্তিক আরিয়ান। ‘দোস্তানা টু’ থেকে বাদ পড়ার পর কার্তিকের জনপ্রিয়তা দেখে তাঁর বাড়ির সামনে প্রযোজকদের লাইন তৈরি হয়ে গেছে।

তবে কার্তিকের মনে ধরেছে জাতীয় পুরস্কারজয়ী পরিচালক হংসল মেহেতার এক বাণিজ্যিক ছবির গল্প। ছবিটির চিত্রনাট্য নিয়ে একাধিকবার আলাপ–আলোচনা করেছেন তাঁরা। এই ছবিতে কার্তিককে ভারতীয় বিমান বাহিনীর এক কর্মকর্তার ভূমিকায় দেখা যাবে। জানা গেছে, ছবিটি নির্মিত হবে সত্য ঘটনা অবলম্বনে।

অন্যদিকে সাজিদ নাদিয়াদওয়ালার এক ছবিতেও দেখা যাবে কার্তিককে। সেটা নিয়েও আলোচনার অগ্রগতি হয়েছে। সাজিদের ছবিটি প্রেমকাহিনিভিত্তিক। তাই এখানে কার্তিককে দেখা যাবে রোমান্টিক চরিত্রে। করোনার কারণে কার্তিকের ‘ভুল ভুলাইয়া টু’ ছবির শুটিং আটকে আছে। এ বছরের নভেম্বরে ছবিটি মুক্তির কথা ছিল।

ডিজিটাল আঙিনায় মুক্তি পেতে চলেছে তাঁর অভিনীত ছবি ‘ধামাকা’। ছবিটির স্বত্ব বিক্রি হয়েছিল ১৩৫ কোটি রুপি বা ১৫২ কোটি টাকা দিয়ে। এর আগে কোনো ছবির জন্য এত বড় অঙ্ক কোনো ওটিটি প্ল্যাটফর্মকে দিতে হয়নি।

আমাজন প্রাইম বরুণ ধাওয়ানের ‘কুলি নম্বর ওয়ান’ ছবির স্বত্ব কিনেছিল ৯০ কোটি রুপি দিয়ে। আর অক্ষয় কুমারের ‘লক্ষ্মী’ ছবির ডিজিটাল স্বত্ব কেনার জন্য ডিজনিপ্লাস হটস্টারকে দিতে হয়েছিল ১১০ কোটি। তাই ১০ দিন শুটিং করে বানানো এই ছবির প্রযোজকদের মুখে এই দুর্দিনে হাসি চওড়া হয়েছে। কত কম সময়ে কত দামি ছবি বানানো যায়, তার একটা উদাহরণ হয়ে থাকবে এই ছবি।

তরুণ প্রজন্মের তারকাদের ভেতর সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক গোনা অভিনেতা কার্তিক আরিয়ান। ছবিপ্রতি তিনি ২০ কোটি রুপি বা ২৩ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নিচ্ছেন। অনেক সংগ্রামের পর বলিউডের সবচেয়ে বেশি অর্থোপার্জনকারী তরুণ তারকাদের খাতায় নিজের নাম লিখতে সমর্থ হয়েছেন তিনি। মনে করিয়ে দেওয়া যাক, ‘পেয়ার কা পঞ্চনামা’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে পরিচিতি পেয়েছিলেন কার্তিক আরিয়ান। সম্প্রতি ছবিটির এক দশক পূর্ণ হয়েছে।