সাত ব্যাটসম্যান ও তিন পেসার নিয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ

আজ রবিবার (২৩ মে) শুরু হচ্ছে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। আইসিসি ওয়ানডে সুপার লিগের অন্তর্ভুক্ত এই সিরিজটি জয় দিয়েই শুরু করতে চায় তামিম ইকবালের দল। সাকিব ফেরায় বড় প্রাপ্তি বাংলাদেশের। সাত ব্যাটসম্যান ও তিন পেসার নিয়ে প্রথম ম্যাচের সেরা একাদশ সাজানোর পরিকল্পনা টাইগার টিম ম্যানেজমেন্টের।

ওপেনিংয়ে লিটনই তামিমের সঙ্গী। সাকিবের ফেরা বাংলাদেশের জন্য স্বস্তি। সাকিব আল হাসান একাদশে থাকবেন তাঁর প্রিয় তিন নম্বর পজিশনেই। এরপর যথাক্রমে মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে দলের জন্য বড় সুখবর রিয়াদ বল হাতে ফিরবেন এই সিরিজে।

সৌম্য সরকারের দলে থাকা প্রায় নিশ্চিত। আফিফ হোসেন ধ্রুব প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ পারফর্ম করেছেন। এছাড়া তরুণদের সুযোগ দেয়ার পক্ষে কোচ রাসেল ডমিঙ্গো; তাই বলাই যায় আফিফ থাকছেন সেরা একাদশে।সাকিবের সাথে স্পিন আক্রমণে থাকবেন অভিজ্ঞ মেহেদী হাসান মিরাজ। তাসকিন আহমেদ ও আইপিএল মাতিয়ে দেশে ফেরা কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে থাকবেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা দু’দলের ৪৮ বারের মুখোমুখি লড়াইয়ে ৩৯ ম্যাচে জয় পেয়েছে লঙ্কানরা, বিপরীতে বাংলাদেশ জিতেছে কেবল ৭টিতে। বাকি ২টি ম্যাচের কোন ফলাফল হয়নি। এখন পর্যন্ত মোট ৮টি দ্বিপাক্ষিক সিরিজে মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কা। যেখানে একটি বারও সিরিজ জিততে পারেনি টাইগাররা।

৬ বার সিরিজ জিতেছে লঙ্কানরা। ২০১৩ এবং ২০১৭ সালে ২টি সিরিজ ড্র হয়। এবার অভিজ্ঞতার হিসাবে এগিয়ে থাকা বাংলাদেশের সামনে রয়েছে সিরিজ জয়ের বড় সুযোগ। এছাড়াও ওয়ানডে ক্রিকেটে নিজেদের কন্ডিশনে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স রয়েছে বাংলাদেশের।

তিন সংস্করণ মিলিয়ে শেষ ১০ ম্যাচ ধরে জয়শূন্য বাংলাদেশ দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ওয়ানডেতে হোয়াইটওয়াশ করার পর তিনটি করে টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে হেরেছে টাইগাররা, ড্র করতে পেরেছে একটি টেস্ট। হতাশার এই অধ্যায় ভুলে ওয়ানডে লিগের পয়েন্টের দিকে চোখ স্বাগতিকদের।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টায় শুরু হবে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। ম্যাচটি সরাসরি দেখাবে গাজী টিভি ও টি-স্পোটর্স।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশঃ তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সৌম্য সরকার, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান।