বিয়ের কয়েক মাসের মধ্যেই শরীরে বাসা বাঁধল এক মরণ রোগ, হাউমাউ করে কেঁদে ভাসালেন নেহা কক্কর

বলিউডে নেহা কক্করের নাম আমরা সকলেই শুনেছি। বিয়ের পর থেকে এই গায়িকা সোশ্যাল মিডিয়াতে হাইলাইটে থাকেন। সম্প্রতি তাঁর বিয়ে হয়েছে। কিন্তু বিয়ের কিছুদিন যেতে না যেতেই প্রকাশ্যে হাউ হাউ করে কেঁদে বলেন যে তাঁর শরীরে বাসা বেঁধেছে এক মারণ রোগের। কী এই মারণ রোগ? যে কারণে অভিনেত্রী এইভাবে কেঁদে উঠলেন?

বলিউডের রিমেক কুইন নেহা কক্কর সর্বদাই খবরের শিরোনামে থাকে। গান কিংবা নিজের ব্যক্তিগত জীবন সবেতেই তিনি প্রথম সারিতে রয়েছেন। আদিত্যর সঙ্গে এই গায়িকার প্রেমের গুঞ্জন থেকে বিয়ে সমস্ত কারণেই তিনি লাইম লাইটে থাকতেন।

বিনোদন :তৃনমূলে যোগ দিতে চলেছেন ‘দিদি নং ১’-এর রচনা ব্যানার্জি! জোর জল্পনা টলিপাড়ায়‘বরকে সামলাতে পারছেন না, রাজ্য কি সামলাবে’? বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর ট্রোল হলেন শ্রাবন্তীমা হওয়ার পর মোটা হয়ে গিয়েছেন

অভিনেত্রী, নেটিজেনদের যোগ্য জবাব দিলেন শুভশ্রীপ্রয়াত হলেন অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলার প্রিয়জন, কাছের মানুষকে হারিয়ে ভেঙে পড়লেন দুজনেইবিয়ের ১ মাসের মধ্যেই খুলে ফেললেন শাড়ি, বোরখা পড়ে প্রকাশ্যে এলেন তৃনা সাহা, ভাইরাল ভিডিওমায়ের জন্মদিনে খোশমেজাজে রুক্মিণী, দেবকে সঙ্গে নিয়ে মায়ের জন্মদিন সেলিব্রেট করলেন অভিনেত্রী

কিন্তু বিয়ের কিছু মাস পরেই তিনি নিজেকে সামলাতে না পেরে জনসমক্ষে কেঁদে তাঁর শরীরে বাসা বাঁধা মারণ রোগের বিষয়টি পুরোটাই খুলে বললেন। তাঁর এই প্রকাশ্যে হাউ হাউ করে কাঁদার ঘটনাটির জন্য তিনি আবার সোশ্যাল মিডিয়াকে সরগরম করলেন।

এই গায়িকা জানিয়েছেন তাঁর শরীরে মানসিক রোগের মত মারণ ব্যাধি বাসা বেঁধেছে। এই রোগের জন্য তিনি দীর্ঘদিন থেকে চিকিৎসা করাছেন। চিকিৎসার জন্য তাঁর অনেক অর্থ ব্যয় হচ্ছে। এই গায়িকা মনে করেন মানসিক রোগ যার শরীরে বাসা বাঁধে তা আর কখনো সারে না।

কিন্তু কিন্তু ইন্ডিয়ান আইডলের ১২ এই বিচারককে দেখলে কখনোই বোঝা যাবে না যে তিনি মানসিক রোগের মতো ব্যাধিতে আক্রান্ত। তিনি কখনো বুঝতেই দেয়নি যে তাঁর ভেতরে এমন ধরনের একটা অসুখ আছে। কিন্তু এইবার নিজেকে সামলাতে না পেরে তিনি জনসমক্ষে কেঁদে পুরো বিষয়টিকে জানালেন।